আজ ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ , ৫:১১ পূর্বাহ্ণ
ব্রেকিং নিউজ
সর্বশেষ খবর
নারায়ণগঞ্জবাসীকে ঈদুল ফিতরের আগাম শুভেচ্ছা জানালেন সজল বিন ইবু রূপগঞ্জ উপজেলায় সকল মার্কেট বন্ধের নির্দেশ সোনারগাঁয়ে সকল বিপনি বিতান বন্ধ করে দিলেন প্রশাসন না’গঞ্জের সাবেক সেই এসপি হারুন এবার ডিএমপির উপ-কমিশানর করোনা: শরীফুল হকের পক্ষে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানালেন শাওন

ফতুল্লার পাঁচ ইউনিয়নে আ’লীগের সম্মেলনের হাওয়া!


১১ ডিসেম্বর ২০১৯ বুধবার, ০৭:৫৭  পিএম

সময় নারায়ণগঞ্জ


ফতুল্লার পাঁচ ইউনিয়নে আ’লীগের সম্মেলনের হাওয়া!

স্টাফ রিপোর্টার : সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সম্মেলন। ফতুল্লা থানা আওয়ামীগের সম্মেলন হওয়ার সাথে সাথেই উপজেলার ইউনিয়নগুলোর মধ্যে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে সম্মেলনের হাওয়া। ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের নতুন কমিটিকে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি ইউনিয়ন কমিটিগুলোর মধ্যে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখতে শুরু হয়ে গেছে জোড় তদবীর এবং লবিং। সে সাথে কদর বেড়েছে স্থাণীয় তৃনমূল আওয়ামীলীগের সাধারন নেতাকর্মীদের।


ফতুল্লার ইউনিয়ন গুলো হলো- ফতুল্লা, কুতুবপুর, কাশিপুর, এনায়েতনগর ও বক্তাবলী ইউনিয়ন।


তবে লবিং কিংবা তদবীর যতই হউক না কেন ইউনিয়ন কমিটিগুলোর মধ্যে দলের জন্য নিবেদিত প্রান এবং ত্যাগী ও পরীক্ষীত নেতাদের মূল্যায়ন করা হবে বলে থানা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। সে সাথে দ্রæত হতে যাওয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটিগুলোর মধ্যে জামায়াত শিবির কিংবা অন্যদল থেকে আসা হাইব্রীড মার্কা সুবিধাবাদীরা দলে প্রবেশ না করতে পারে এজন্য স্থানীয় আওয়ামীলীগের তৃনমূল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার পরামর্শও প্রদান করা হয়েছে।  


সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ ১৫ বছর পর গত শনিবার (৭ ডিসেম্বর) ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে সাইফউল্লাহ বাদল থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও শওকত আলী সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষা উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের থাকার কথা থাকলেও তিনি আসেননি। এতে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডস্থ ফতুল্লায় স্টেডিয়াম সংলগ্ন নাসিম ওসমান মেমোরিয়াল পার্কে (নম পার্ক) হাজারো নেতাকর্মীরা জড়ো হন। পরবর্তীতে সম্মেলনের ২য় পর্বের অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহিদ মো. বাদলের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি গোলাম রসুল, আবু জাফর বিরু, যুগ্ম সম্পাদক ইকবাল পারভেজ, ডা. সাংগঠনিক সম্পাদক সুন্দর আলী, মীর সোহেল আলী, দপ্তর সম্পাদক এস এম রাসেল, মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বাবু চন্দন শীল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএ রশিদ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভুইয়া সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু, ফতুল্লা থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ফরিদ আহম্মেদ লিটন, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু মোহাম্মদ শরীফুল হক, সাধারণ সম্পাদক এমএ মান্নান প্রমুখ।


এদিকে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন হওয়ার পর পরই উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পদ-পদবী প্রত্যাশী নেতাকর্মীরা নড়ে চড়ে বসেছেন। ইউনিয়ন কমিটিগুলোর মধ্যে স্থান পেতে এলাকায় নিজের অবস্থান তুলে ধরার জন্য বিভিন্ন ব্যানার ফেষ্টুন সাটিয়েছেন অনেকেই। সে সাথে দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সাথে তদবীর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও সূত্রে জানা গেছে। তবে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটি ঘোষনা করার ক্ষেত্রে পূঙ্খানু পূঙ্খভাবে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে আওয়ামীলীগের জন্য নিবেদিত প্রান এবং দলের ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করা হবে। বিশেষ সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে কোন সুবিধাবাদীরা যাতে করে দলের মধ্যে স্থান না পেতে পারেন সেদিকে কঠোরতর ভূমিকা পালনের কথা জানিয়েছেন থানা আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ।


এদিকে ফতুল্লা থানা এলাকার ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন করার ক্ষেত্রে দলের সিনিয়র নেতাদের অনেকটা বেগ পেতে হতে পারে বলে স্থাণীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ মনে করছেন।


কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন নেতাকর্মীদের সাথে আলাপকালে জানা গেছে, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের মধ্যে দলীয় কোন্দল প্রবল। সম্প্রতি সময়ে দলীয় কোন্দলে একাধিক সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। আধিপত্ত বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় একাধিক হত্যাকান্ডের ঘটনাও সংগঠিত হয়েছে। থানা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠনের পর পরই কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগে পদ-পদবী প্রত্যাশীরা নড়েচড়ে বসেছেন। পদের জন্য কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগে একাধিক প্রার্থী লক্ষ্য করা গেছে।


কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন। বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে, আসন্ন কাউন্সিলে এই ইউনিয়নের সভাপতির পদ পেতে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন আওয়ামীল নেতা ও ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন হাওলাদার। স্থানীয় আওয়ামীলীগের বড় একটি অংশও রয়েছে তার পক্ষে।


তবে দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ গঠন করার ক্ষেত্রে কঠোর সর্তকতা অবলম্বন করবেন বলে সাধারন আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা। এর ব্যত্যয় ঘটলে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটিকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের সংঘর্ষের ঘটনারও আশংকা করছেন তৃনমূল আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

এবিষয়ে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম. শওকত আলী সময় নারায়ণগঞ্জ’কে বলেন, আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামীলীগের জাতীয় কাউন্সিল হওয়ার কথা রয়েছে। এই কাউন্সিলের পর ফতুল্লার ৫টি ইউনিয়নের ওয়ার্ড কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ইউনিয়ন গুলোর কাউন্সিল হবে।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিগত দিনে যারা দলের জন্য কাজ করেছেন, সেই ত্যাগী নেতাদেরই মূল্যায়ন করা হবে। আমাদের এমপি মহোদয় (শামীম ওসমান) কে সহ অন্যান্য নেতাকর্মীদের নিয়ে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে যোগ্য ব্যক্তিকেই ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের কমিটির নেতৃত্বে আনা হবে। দলের হাইব্রিডদের নিয়ে আমরা ১০০% সতর্ক রয়েছি। কোন জামায়াত, বিএনপি, স্বাধীনতা বিরোধীসহ বিতর্কিতদের জায়গা হবে না। আমরা সম্মান পেয়েছি, তাই বলিষ্ঠ ও যোগ্য ব্যক্তিদের মাধ্যমে ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি গঠনের মধ্য দিয়ে আমাদের সম্মান ধরে রাখবো ইনশা আল্লাহ।    

সময় নারায়নগঞ্জ.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:

রাজনীতি -এর সর্বশেষ