আজ ৩ কার্তিক ১৪২৬, শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ , ২:০৮ পূর্বাহ্ণ
ব্রেকিং নিউজ
সর্বশেষ খবর
সৌদিতে বাসে আগুনে পুড়ে নিহতদের মধ্যে রূপগঞ্জের দুই ভাই আফগানিস্তানে মসজিদে হামলা, নিহত অন্তত ৬২ বন্দরে শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদ এখন চায়ের দোকান ! পুকুড়ে গোসল করতে গিয়ে দুই ভাইয়ের মৃত্যু বরযাত্রী বাসে অগ্নিকান্ড

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানালেন বিএনপি নেতা রুহুল


৩১ আগস্ট ২০১৯ শনিবার, ০৮:৫১  পিএম

সময় নারায়ণগঞ্জ


প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানালেন বিএনপি নেতা রুহুল

নারায়ণগঞ্জে জনপ্রিয় অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক ভাই ও বোনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
নিত্য দিনের মতো আজ দুপুর ২ঃ২০ মিনিটে ঢাকার উদ্দ্যশে ফতুল্লা রেল ষ্টেশন থেকে ট্রেন যোগে যাছিলাম, প্রতিমধ্য পাগলা রেল ষ্টোশন ছাড়ার পর একটি ফোন আশে যে আমার নামে আজ রাতে ১২টার পর নারায়ণগঞ্জের সুনাম ধন্য ৪ টি অনলাইনে ( যা আমি আজ রাত ৩ টা পর্যন্ত) আমার দৃষ্টিগোচর হয়নি।

তখন আমি আমার এক সহযোদ্ধা বন্ধুর জনপ্রিয় অনলাইন সম্পাদকের কাছে নিউজের লিংক দেওয়ার জন্য বলি তিনি আমাকে ৪ টি সুনাম ধন্য অনলাইন গুলোর লিংক গুলো দেয়।

আমি তখন এই লিংক গুলোর নিউজ পড়ে দেখি গত শুক্রবার রাত ১১ঃ৩০ মিনিটে ফতুল্লার শিবু মার্কেট এলাকা থেকে নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন থানা দীর্ঘদিন যাবত দায়িত্বরত চৌকস অফিসার এস আই কামরুল ইসলাম সাহেব মাদকের একটি বড় চালান আটক করে গাড়িসহ।

এই নিউজের ৩টি অনলাইন বলা হয় আটক কৃত গাড়ির মালিক ইব্রাহিম নাকি আমার বাড়াটিয়া, আমার বাড়িতে কোন ভাড়াটিয়া নেই আমি বাসায় কোন অতিরিক্ত রুম নেই, স্বাভাবিক ভাড়াটিয়া থাকার প্রশ্ন থাকেনা। আর ১ টি অনলাইনে আমাকে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত বলা হয়েছে।

যা রটে কিছুটা বটে এটা মিথ্যা না। যেমন নিউজের আলোকে আমার নাম আসার কারন আমি নিজে তুলে ধরছি যেমন আটককৃত গাড়ির মালিক ইব্রাহিম যদি হয় তা হলে ইব্রাহিম জড়িত হতে পারে আইনের দৃষ্টিতে এটা ঠিক, আমার দৃষ্টিতে তিনি দেশ ও জাতীর শত্রু। কারন আমি শুধু মাদক বিক্রিতাকে নয় মাদক সেবিদেরও ঘৃণা করি এটা আমার এলাকায় সবাই জানে বিশেষ করে আমি যে এলাকায় ৪৫ বছর যাবত বসবাস করি এই এলাকায় বর্তমান ফতুল্লা প্রেসক্লাব ও মডেল প্রেসক্লাবের সভাপতি / সাধারন সম্পাদকসহ শীর্ষ ১১ জন কর্মকর্তা বসবাস করে। তাদের সাথে দিনে ও রাতে ১ বার দেখা হয়। মনে হয় তারা চলার পথে একদিন ও কোন মাদকসেবীদের সাথে বসে চা পান করতে দেখেছে। এটা আমার অহংকার

আর যদি আমি মাদক বিক্রিতা বা সেবনকারী হয়ে থাকি তা হলে আমার নিত্যদিনের সঙ্গী হবে এই এলাকার একাধীক ঢাকা নারায়ণগঞ্জের জনপ্রিয় অনলাইন, প্রিন্ট মিডিয়া,ও ইলেক্টিক মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক ভাইয়েরা কারন আমি সকাল ১১ টায় বাসার থেকে বের হয়ে আমার বাবাকে স্কুলে পৌছিয়ে দিয়ে দিয়ে এই সকল জনপ্রিয় সম্পাদক ও সাংবাদিক ভাই ও বন্ধুদের সাথে দুপুর ১ টা পর্যন্ত সময় দেই তার পরে দীর্ঘ ১০ বছর যাবত ২ টার পর ঢাকায় চলে যাই, ( বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ যাওয়া আসার চিত্র ঢাকা মতিঝিল থানার সিসি ক্যামেরা থাকার কথা) বিশেষ করে আমার নারায়ণগঞ্জের জনপ্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা এটা জানেন।

এই লাইনটি লেখার অর্থ আমার চলা ফেরার সকল কিছুর সঙ্গী তারা।

আসল কথায় আসা যাক নিউজের আলোকে ইব্রাহিম আমার বা আমাদের ভাড়াটিয়া এটা ঠিক, আমার বক্তব্য হলো ইব্রাহিম নামে জনৈক ব্যক্তি আমাদের দোকানের ভাড়াটিয়া যে দোকানের সামনে দিয়ে সারাদিন রাত লক্ষ লক্ষ মানুষ আসা যাওয়া করে, রাস্তা ৩৫ ফিট চওড়া, আমার ও আমাদের প্রার্থক তুলে ধরা হলো, এটা দোকান ঘরটা আমার না, আমাদের, কারন এই জমি আমার মরহুম বাবার নামে আমার ভাই বোন ৭ জন সাথে আমার মা জীবিত আছেন কাউকে আমার বাবা লেখে দিয়ে যাইনি তা হলে আমার ভাড়াটিয়া এটা ঠিক না, তেমনি এই দোকানের ভাড়া আমি এই ৮ মাস আমি গ্রহন করিনি, তা হলে জনৈক ইব্রাহিম আমার ভাড়াটিয়া লেখাটা ঠিক হয়নি আমি মনে করি।

বিঃ দ্রঃ জনৈক ইব্রাহিমকে আমি চিনিনা এবং সেই সময় আমি ঢাকায় থাকার কারনে তিনি দোকান ভাড়া নিবে বলে একাধিক বার ফোন দেয় কিন্তু রাজনীতিগত কারনে এলাকায় আসতে না পারায় তাকে আমি দোকান ভাড়া দিতে অস্বীকার করি এভাবে ২ মাস চলে যায়, তার পর এলাকায় আসলে দোকান ভাড়া নেওয়ার চেষ্টা করলে আমি তাকে পরিচিত লোক নিয়ে আসতে বলে তিনি নারায়ণগঞ্জের সুনাম ধন্য অনলাইন উজ্জাবিত বাংলাদেশের সম্পাদকের বাবাকে নিয়ে আসে এবং তার পরিচয় আমি ও আমরা দোকান দেই, সেই সময় তাকে আমি বলি দোকান কিন্তু আপনাকে দিয়েছি ( সম্পাদকের বাবাকে)
তার পরে ও আমি বলতে চাই, আটককৃত গাড়ির মালিক যদি জৈনকি ইব্রাহিম হয় তা হলে তিনি অপরাধী তা শাস্তি হওয়া উচিত।

উল্লেখ থাকে যে তিনি আমার সাথে বলেছিল তিনি বিদেশ ছিল, আমার এলাকায় তার বোনের বাড়ি।

প্রিয় সম্পাদক ও সাংবাদিক ভাইয়েরা এখানে আমার অপরাধ কোথায় আমাকে জড়িয়ে কি এই ৪টি সুনাম ধন্য অনলাইন নিউজ করা ঠিক হয়েছে

বিচারের ভার আপনাদের উপড় ছেড়ে দিলাম। আমি আইনের আশ্রয় নিতে পারতাম কিন্তু না নিয়ে আপনাদের উপড় বিচার ছেড়ে দেওয়ার কারন আমি রাজনীতির সাথে জড়িত। আজ যারা আমার বিরুদ্ধে লেখছে ইনশাআল্লাহ আগামী দিন পক্ষ লেখবেনা তার নিশ্চয়তা কি?
তারপরেও বলবো প্রশাসনে ও আপনাদের অনুসন্ধানে যদি আমি অপরাধী হই আমি স্বেচ্ছায় নিজে গিয়ে আইনের হাতে ধরা দিবো।

খোদ হাফেজ
মোঃ রুহুল আমিন শিকদার
সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক
নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি

সময় নারায়নগঞ্জ.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:

মুক্তমত -এর সর্বশেষ